/

অনুবাদ চর্চা

মো: রুকুনুজ্জামান রাসেল

প্রকাশিতঃ ১:১০ অপরাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৭

Remittance hit a 14-month high in August, mainly due to Eid-ul-Azha, in a development that may bring a #sigh of relief মুক্তির নিঃশ্বাস for the government.
গত ১৪ মাসের মধ্যে রেমিট্যান্স সর্বোচ্চ, প্রধানত ঈদুল আযহা উপলক্ষে উন্নয়নের ক্ষেত্রে এটি সরকারে জন্য স্বস্তির নিঃস্বাশ বয়ে আনতে পারে।


Last month migrant workers sent home $1.42 billion.
গত মাসে প্রবাসী কর্মীরা ১.৪২ বিলিয়ন ডলার প্রেরণ করেছে।


The last time this high an amount was remitted was back in June last year, when $1.47 billion was sent.
গত বছরের জুনে শেষ বারের মত এরকম বিপুল পরিমান রেমিট্যান্স এসেছিল।


After that, the monthly remittance was $1-1.2 billion. তারপর থেকে মাসিক রেমিট্যান্স ছিল ১-১.২০ বিলিয়ন ডলার।

August’s receipts are also an improvement of 20.34 percent from a year earlier and 26.79 percent from a month earlier, according to data from the Bangladesh Bank. বাংলাদেশ ব্যাং কের তথ্য মোতাবেক আগষ্টের রেমিট্যান্স একই সময়ের গত বছরের চেয়ে ২০.৩৪ % এবং গত মাসের চেয়ে ২৬.৭৯ % বেশি।

#Expatriate প্রবাসী Bangladeshis sent home more money because of Eid-ul-Azha and severe floods in many parts of the country, said a Bangladesh Bank official.
বাংলাদেশ ব্যাংকের একজন কর্মকর্তার মতে, প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদুল আযহা এবং দেশের কিছু অঞ্চলে বন্যার জন্য বেশি টাকা পাঠিয়েছে।


Besides, in recent times, the government and the central bank took various steps that also #contributed অবদান রাখা to the jump in remittance.
এছাড়াও সাম্প্রতিক সময়ে সরকার এবং বাংলাদেশ ব্যাংক এই প্রবাহ বৃদ্ধিতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছেন।


In the first two months of the fiscal year, remittance inflow increased 15.81 percent to $2.53 billion, according to the central bank statistics. #In contrast, অপর পক্ষে/বিপরীতে during the same time in the last fiscal year, remittance slumped 15.32 percent.

The government and the BB are pursuing further #facilitation সুবিধা দেওয়া and #widening বিস্তৃতি করা of #legitimate (আইনগত) remittance channels for the #migrant (প্রবাসী) workers abroad, said the central bank’s latest monetary policy statement.
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মূদ্রানীতির বিবরণী মোতাবেক সরকার ও বাংলাদেশ আরও অধিক সুবিধা দিয়েছেন আর বিদেশে প্রবাসী বাংলাদেশীদের জন্য বিদ্যমান টাকা পাঠানোর চ্যানেল্গূলোকে আইঙ্গতা বৈধতা প্রদান করা হবে।


Remittance inflow in fiscal 2016-17 has been the lowest in six years.
২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে গত ৬ বছরের মধ্যে সবচেয়ে নিম্ন।


Migrant workers sent home $12.77 billion last fiscal year, down 14.47 percent year-on-year.
প্রবাসী শ্রমিকরা গত অর্থ বছরে ১২.৭৭ বিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছে যা এক বছরের এওকই সময়ের চেয়ে ১৪.৪৭ % কম।

বন্ধন