/

৩৮তম বিসিএস প্রিলি. প্রস্তুতি : কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি সাজেশন্স

জব স্টাডি নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিতঃ ৩:০৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ৩০, ২০১৭

সুপ্রিয় শিক্ষার্থী, আসসালামু আলাইকুম। ৩৮তম বিসিএস প্রিলি. খুবই সন্নিকটে। বিসিএস প্রিলিতে কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ে নম্বর বরাদ্দ থাকে ১৫ । কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তিতে ভালো করার জন্য  আজকে প্রকাশ করা হলো কম্পিউটার ও তথ্যপ্রযুক্তি’র  সাজেশন্স। বেশি বেশি পড়তে থাকুন এবং জব স্টাডি টুয়েন্টিফোর ডট কমের সঙ্গেই থাকুন।

 

কম্পিউটার

১. IBM কোম্পানিকে বলা হয়- বিগ ব্লু।

২. বিশ্বের সর্বপ্রথশ পূর্ণাঙ্গ কম্পিউটার হলো- ENIAC.

৩. বিশ্বের প্রথম ল্যাপটপের নকশাকারী- বিল মোগারিজ।

৪. মিনি কম্পিউটারের জন্মদাতা- কেনেথ এইচ ওলসেন।

৫. মাইক্রো কম্পিউটারের জনক বলা হয়- এইচ,এডওয়ার্ড রবার্টকে।

৬. বাংলাদেশে প্রথশ অনলাইন ইমেইল চালু হয়- ১৯৯৪ সালে।

৭. ন্যানো সেকেন্ড হলো- এক সেকেন্ডের একশত কোটি ভাগের এক ভাগ।

৮. বাংলাদেশে একমাএ সুপার কম্পিউটার রয়েছে- বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল ল্যাবে।

৯.  দোয়েল ল্যাপটপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হলো- টেশিস।

১০. কম্পিউটার তথ্যেও দৈর্ঘ্য মাপা হয়- বাইট-এ।

১১. ডাটাবেজ টেবিলের রেকর্ড সমূহকে বিশ্বের লজিক্যাল অর্ডারে সাজিয়ে রাখাকে- ইনডেক্সিং বলে।

১২.  প্রোগ্রামিং ভাষা জাভা উদ্ভোবন করেন- সান মাইক্রো সিস্টেম।

১৩. একটি স্প্রেডশিট  সফটওয়্যার হলো- এম এম এক্সেল।

১৪. BASIS  এর পূর্ণরূপ হলো- Bangladesh Association of Sofware and Information Service

১৫. বাংলাদেশের প্রধান সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের নাম- বেসিস।

১৬. বাংলাদেশের প্রথম ব্যবহৃত বাংলা ফ্রন্ট হলো- বিজয়।

১৭. দোয়েল প্রথম বাজারে আসে- ১১ অক্টোবর ২০১১ সালে।

১৮. মাদার অব অল ভাইরাস বলা হয়- CIH ভাইরাসকে।

১৯. CIH ভাইরাস বিশ্বব্যাপি বিপর্যয় সৃষ্টি করে- ২৬ এপ্রিল, ১৯৯৯ সালে।

২০. সাওতালি ভাষায় সফটওয়্যার উদ্ভাবন করেন- মাইকেল সরেন ও ফিরোজ আহমেদ।

২১. বাসের গতি মাপ হয় মেগাহার্টজে।

২২. ৩২ বিট গতিতে ডেটা বহন করেন- ভেসা বাস।

২৩. কম্পিউটারের ক্ষেএে ডায়াবেটিক নির্ণয়ে ব্যবহৃত হয়- বায়োসেন্সর।

২৪. বায়োসেন্সরের প্রথম ধারনা দেন- অধ্যাপক ক্লার্ক(১৯৫৬ সালে)।

২৫. খেলাধুলায় প্রথম কম্পিউটার ব্যবহার করা হয়- ১৯৬০ সালে।

২৬. ডাটাবেজ সমূহের রেকর্ডসমূহকে বিশেষ লজিক্যাল অর্ডারে সাজিয়ে রাখাকে- ইনডেক্সিং বলে।

২৭. প্রোগ্রামিং ভাষা জাভা উদ্ভবন করেন- সান মাইক্রোসিস্টেম।

২৮. পৃথিবীর প্রথম স্পেডশীট প্রোগ্রাম হলো- ভিসিক্যাল

২৯. কোনো ডাটাবেসের বৈশিষ্ট্য প্রকাশের জন্য যেসব রেকর্ড ব্যবহার করা হয় তাকে বলে- এনটিটি।

 

তথ্যপ্রযুক্তি

১. SMS  এর পূর্ণরূপ– Short Message Service.

২. যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্কিন কুপার আধুনিক মোবইল ফোন আবিষ্কার করেন- ১৯৭৩ সালে।

৩. প্রথশ আইফোন বাজারজাতকরণ শুরু হয়- ২৯ জুন ২০০৭ সালে।

৪. নেটওয়ার্ককার্ডের ইউনিক ক্রমিক নম্বরকে বলে- ম্যাক এড্রেস।

৫. সকল নেটওয়ার্কের জননী- ইন্টারনেট।

৬. সর্বপ্রথম ওয়্যারল্যাস কমিউনিকেশনের মাধ্যমে যোগাযোগ স্থাপন করেন- ইতালিয়ান বিজ্ঞানী মার্কনী।

৭. কম্পিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেমের মাধ্যমে বিভিন্ন কম্পিউটিং রিসোর্স যেমন হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার ব্যবহার করাকে বলা হয়- ক্লাউট কম্পিউটিং।

৮. ক্লাউট কম্পিউটিং সেবা দেয়া শুরু হয়- ২০০৫ সাল থেকে।

৯. সংরক্ষিত ডেটাবেজকে বলে- ব্যাক এন্ড (Bank End)।

১০. ARPANET চালু হয়- ১৯৬৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রে।

১১. বাংলাদেশে প্রথম অনলাইন ইন্টারনেট চালু হয়- ৪জুন ১৯৯৬ সালে।

১২. HTML- Hyper Text Mark Up Reader.

১৩. Email ঠিকানায়- ২টি অংশ থাকে।

১৪. উইকিলিকস এর প্রতিষ্ঠাতা- জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ।

১৫. টেলেক্স এর মাধ্যমে পাঠানো হয়- কথা বা শব্দ।

১৬. ইনস্ট্রাগ্রাম উদ্ভাবন করেন- কেভিন সিস্ট্রম মাইক ক্রেঞ্জার।

১৭. ইনস্ট্রাগ্রাম চালু হয়- অক্টোবর ২০১০ সালে।

১৮. বর্তমান আধুনিক রোবটিক্সের পথপ্রদর্শক হিসেবে কৃতত্ব দেওয়া হয়- আইজ্যাক আশিমোকে।

১৯. CTR নাম পরিবর্তন করে  IBM রাখা হয়- ১৯২৪ সালে।

 

সুপ্রিয় পাঠক

বিসিএস, ব্যাংক সহ যেকোন চাকুরি প্রস্তুতির জমপেশ আড্ডা দিতে জব স্টাডি অফিশিয়াল গ্রুপে জয়েন করতে ভুলবেন না কিন্তু!!