/

কোটা সংস্কারের দাবিতে স্মারকলিপি নিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দিকে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিতঃ ৬:৫৮ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ১৪, ২০১৮

বাংলাদেশে চাকুরির সকল নিয়োগ পরীক্ষায় ৫৬% কোটা আছে। আর সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য আছে ৪৪%। এ বৈষম্য রোধে এবং সাধারণ শিক্ষার্থীদের জন্য চাকুরির বাজার উন্মুক্তকরণে কোটা সংস্কারের দাবিতে স্মারকলিপি নিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দিকে যাত্রা করেছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

বুধবার  সকাল সাড়ে ১০টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে থেকে মিছিলযোগে শিক্ষার্থীরা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অভিমুখে রওয়ানা হন। মিছিলটি ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে থেকে বের হয়ে শাহবাগ, টিএসসি, দোয়েল চত্বর হয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের দিকে যায়।

মিছিলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৩ হাজারের অধিক শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

মিছিল থেকে তারা ‘মুক্তিযুদ্ধের বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘দাবি মোদের একটাই, কোটার সংস্কার চাই’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই, ‘কোটা সংরক্ষণ বন্ধ কর, মেধাবীদের সুযোগ দাও’, ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকে।

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, ‘আমাদের দাবি হলো, কোটা ৫৬% থেকে কমিয়ে একটি সহনশীল মাত্রায় তথা ১০%-এ নিয়ে আসা। বর্তমান ৩০ লক্ষ বেকারের এ বাংলাদেশে কোটা সংস্কার অত্যন্ত জরুরি। এজন্য সবাই প্রধানমন্ত্রীর কাছে কোটার একটা যৌক্তিক সংস্কার দাবি করছেন।’

তিনি বলেন, ‘কোটা সংস্কারের দাবিতে আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। আমরা আজ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে স্মারকলিপি দিবো। এটা আমাদের ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ। পরবর্তী কর্মসূচি আমরা সেখান থেকে ঘোষণা করবো।’

স্মার্ট ক্যারিয়ার গড়তে join করুনঃ Job Study : Build your smart career