/

বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষার প্রস্তুতিকৌশল : বাংলা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিতঃ ৮:১২ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ২৮, ২০১৮

প্রিলি পরীক্ষার বাংলা বিষয়টি দুইটি অংশে বিভক্ত। বাংলা ভাষা ও সাহিত্য। দুইটি অংশ মিলে মোট ৩৫ নম্বর থাকবে যা প্রিলির মোট নম্বরের ১৭.৫০%। তাই বাংলা বিষয়ের প্রস্তুতি ভালোভাবে নেওয়া প্রয়োজন।

সিলেবাস অনুযায়ী ভাষা অংশে ভাষার প্রয়োগ-অপ্রয়োগ, বানান, বাক্যশুদ্ধি, পদ, সন্ধি, সমাস, বিপরীতার্থক ও সমার্থক শব্দ, পারিভাষিক শব্দ, প্রত্যয়, ধ্বনি, শব্দ, বাক্য, বর্ণ ইত্যাদি বিষয়ে ১৫ মার্কের প্রশ্ন থাকবে। কিন্তু কারক, সমাস, ছন্দ ইত্যাদি বিষয়েও প্রশ্ন থাকতে পারে। তাই ব্যাকরণের কোন অংশই বাদ দেওয়া যাবেনা। এজন্য ড. হায়াৎ মামুদের উচ্চতর বিশুদ্ধ ভাষা শিক্ষা বইটা তামা তামা করে ফেলেন।

কোন অংশ বাদ দেওয়া যাবে না মানে সব বিষয়ের সবকিছু পড়তে হবে এমনটা না। সব বিষয়ের সবকিছু পড়তে হবে না। বেছে বেছে পড়বেন। কোনটা পড়বেন আর কোনটা পড়বেন না এটা বুঝার জন্য আপনাকে বিগত বছরের প্রশ্নগুলো পড়তে হবে সবার আগে। এজন্য এমপিথ্রি বাংলা বইটা দেখুন।

কিছু বিষয় বিশেষ করে বানান, বিসর্গসন্ধি, নিপাতনে সিদ্ধ স্বরসন্ধি, নিপাতনে সিদ্ধ ব্যঞ্জনসন্ধি, দেশি, আরবি, ফারসি, ফরাসি, পর্তুগীজ, তুর্কি শব্দগুলো মনে রাখা কষ্টকর। তাই সেগুলো নিজের মত করে ছন্দ বানিয়ে অথবা অন্য কোন কৌশলে মনে রাখুন। যেমনঃ শ্বশুর ও শাশুড়ী বানান নিয়ে অনেক সময় দ্বিধান্বিত হয়ে পড়ি আমরা। শ্বশুর ছেলে মানুষ। তাই তালব্য “শ” এর নিচে একটা ঝুলন্ত “ব” আছে। মনে থাকবে না?

কারক ও সমাসের প্রকারভেদ ও সংজ্ঞাগুলো ভালোভাবে বুঝুন। যদিও অল্প কয়েকটা ব্যতিক্রম আছে, তথাপিও সংজ্ঞাগুলো ভালোভাবে বুঝলে কারক ও সমাস অনেকটাই সহজ হয়ে যায়। ব্যতিক্রমগুলো খাতায় লিখে বারবার পড়ুন।

সিলেবাস মোতাবেক সাহিত্য অংশটি তিনটি অংশে বিভক্ত। প্রাচীন যুগ, মধ্যযুগ ও আধুনিক যুগ। তিনটি অংশ মিলে ২০ মার্কের প্রশ্ন থাকবে।

প্রাচীন ও মধ্যযুগ থেকে ৫ মার্কের প্রশ্ন থাকবে। চর্যাপদ, শ্রীকৃষ্ণকীর্তন, বৈষ্ণব পদাবলী, ময়মনসিংহ গীতিকা, আরাকান রাজসভা ও এই রাজসভা কেন্দ্রিক সাহিত্য, চণ্ডীদাস, শাহ মুহাম্মদ সগীর, সৈয়দ সুলতান, দৌলত উজির বাহরাম খান, আলাওল, কৃত্তিবাস, কাশীরাম দাস, মুকুন্দরাম চক্রবর্তী, আব্দুল হাকিম, ফকির গরীবুল্লাহ, ভরতচন্দ্র রায় গুনাকর, ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত প্রমুখ কবি ও সাহিত্যিক সম্পর্কে প্রশ্ন আসে বেশি। তাই তাঁদের সম্পর্কে ভালোভাবে পড়ালেখা করার পাশাপাশি অন্যান্য লেখকদের সম্পর্কে আইডিয়া নিলে এই অংশে ভালো মার্ক পাবেন।

আধুনিক যুগ থেকে ১৫ মার্কের প্রশ্ন থাকবে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, জীবনানন্দ দাস, জসীমউদ্দিন, প্রমথ চৌধুরী, বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়, মাইকেল মধুসূদন দত্ত, মীর মোশাররফ হোসেন, কায়কোবাদ, ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর, দীনবন্ধু মিত্র, নজিবর রহমান, ফররুখ আহমেদ প্রমুখ লেখকের সাহিত্যকর্ম, গল্প ও উপন্যাসের চরিত্র, প্রেক্ষাপট এবং ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সাহিত্য সম্পর্কে প্রশ্ন আসে বেশি। তাই এসব কবি ও সাহিত্যিক এবং সাহিত্য নিয়ে ভালোভাবে পড়ালেখা করার পাশাপাশি অন্যান্য লেখকদের সম্পর্কে আইডিয়া নিলে এই অংশে ভালো মার্ক পাবেন। ড. সৌমিত্র শেখরের বাংলা ভাষা ও সাহিত্য জিজ্ঞাসা বই থেকে সাহিত্যর প্রাচীন, মধ্যযুগ ও আধুনিক যুগ ঝাঝরা করে ফেলুন।

একই ধরণের নামের গল্প, প্রবন্ধ, নাটক, উপন্যাস ইত্যাদি পড়ার সময় খাতায় টুকে রাখবেন। সাল বা গুরুত্বপূর্ণ তথ্যও একইভাবে খাতায় টুকে রাখতে পারেন। পড়া শেষ হলে দেখবেন খাতাটি পরীক্ষার আগের রাতে একনজরে পড়ে যাওয়ার মত একটা সুন্দর গোছানো হ্যান্ডনোটে পরিণত হয়েছে।

পড়তে বসার শুরুতেই পড়ার টার্গেট ঠিক করুন। যেমনঃ কত ঘন্টা পড়বেন বা কত জন কবি সাহিত্যিক পড়বেন বা কত পৃষ্ঠা পড়বেন ইত্যাদি। পড়ার শুরুতেই এনার্জি ও মনোযোগ ভালো থাকে। তাই কঠিন বিষয়গুলো আগে পড়ুন।

অনেক চেষ্টা করেও অনেকের জন্য কিছু বিষয় মনে রাখা কঠিন। সেগুলো নিয়ে পড়ে থাকবেন না। মনে রাখবেন প্রিলি পরীক্ষা মার্ক তোলার পরীক্ষা না, পাস করার পরীক্ষা। তাই এই পরীক্ষায় সব না পারলেও চলবে।

স্মার্ট ক্যারিয়ার গড়তে join করুনঃ Job Study : Build your smart career

বাংলায় প্রিপারেশন ভালো থাকলে পরীক্ষার হলে বাংলা অংশের উত্তর আগে করতে পারেন। তবে তাড়াহুড়ো করবেন না। বাংলাকে সহজ মনে করে আমরা অনেকেই ভালোভাবে প্রশ্ন না পড়ে না বুঝে উত্তর দিয়ে ফেলি। এটা আত্মঘাতী।

সৈকত তালুকদার
৩৬ তম বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত

বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকে সিনিয়র অফিসার হিসেবে কর্মরত