/

গতি বেড়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিতঃ ৬:০১ পূর্বাহ্ণ | মে ২৬, ২০১৮

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় গত দুই মাসে সারা দেশে ৫৭টি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের আদেশ জারি করা হয়। সংশ্লিষ্টতরা বলছেন, বর্তমান সরকার দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় উন্নতি করতে চায়। এ জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর দিকে বিশেষ নজর দেয়া হচ্ছে।

 

জানা গেছে, সর্বশেষ ২১ মে ২৪টি বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুল জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এর আগে ৭ মে ১২টি প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করা হয়। তার আগে ১১ এপ্রিল আরো ২১টি প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এ ছাড়া দেশের ৮টি শিক্ষা বোর্ডের অধীন মাধ্যমিক স্তরের ১৩০ বিদ্যালয়ে পাঠদানের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ১৪ ও ১৫ মে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পৃথক আদেশে এ অনুমোদন দেয়া হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কিছু দিনের মধ্যে আরো দুই শতাধিক বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন দেয়া হতে পারে।

আরো খবর: প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের অধীনে নিয়োগ পরীক্ষার সময়সূচী প্রকাশ

শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অনুমতি, অ্যাকাডেমিক স্বীকৃতি, অতিরিক্ত শ্রেণি, নতুন বিষয়-বিভাগ খোলা সংক্রান্ত কমিটির সভা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (মাধ্যমিক-২) জাবেদ আহমেদ। সেখানে ৪৯৬টি স্কুল ও কলেজে পাঠদানের অনুমতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তার মধ্য থেকে ১৪ ও ১৫ মে ১৩০টি অনুমোদন দেয়া হয়।

 

এ দিকে গত ৯ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের দুই মেয়াদে ৪৭টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন দেয়া হয়েছে।  যার মধ্যে ২০১২ সালে ১৬টি, ২০১৩ সালে ১০, ২০১৪ সালে ২, ২০১৫ সালে ৩, ২০১৬ সালে ৬টি, ২০১৭ সালে ৫ এবং ২০১৮ সালে এ পর্যন্ত ৫টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদন পায়।