/

নতুন এমপিওভুক্তরা জুলাই থেকেই বেতন প্রাপ্য হবেন

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিতঃ ১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ১২, ২০১৮

নতুন করে কোনো শিক্ষক এমপিওভুক্ত হলে তারা জুলাই মাস থেকেই বেতন প্রাপ্য হবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। সচিবালয়ে তার অফিসকক্ষে তার সঙ্গে নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের ৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল সাক্ষাৎ করে তাদের দাবি বিবেচনার আশ্বাস দেন এবং এই বিষয়টি জানান।

শিক্ষামন্ত্রী বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে সরকারের বিভিন্ন প্রচেষ্টা ও উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সর্বোচ্চ এমপিওভুক্তির চেষ্টা করা হবে। এজন্য মন্ত্রণালয়ে দু’টি কমিটি কাজ করছে। যেসকল শিক্ষক এমপিওভুক্ত হবেন তারা জুলাই মাস থেকেই বেতন প্রাপ্য হবেন।

তিনি বলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় শুরু থেকেই শিক্ষকদের কল্যাণে কাজ করছে। এবারও এমপিওভুক্তির সকল কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি শিক্ষক নেতৃবৃন্দকে বলেন, আপনারা আর কষ্ট করবেন না।

পরে আমরণ অনশন স্থগিত করেছেন নন-এমপিও শিক্ষক ও কর্মচারীরা। শিক্ষা মন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করার জন্য সচিবালয়ে গিয়েছিলেন নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক-কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যক্ষ গোলাম মাহমুদুন্নবী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ ড. বিনয় ভূষণ রায়, সদস্য মো. শফিকুল ইসলাম, মো. আনোয়ার হোসেন এবং জহুরুল ইসলাম।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন সাক্ষাৎকালে উপস্থিত ছিলেন।

এমপিওভুক্তির দাবিতে গত এক মাস ধরে আন্দোলন চালিয়ে আসছিলেন নন-এমপিও শিক্ষক-কর্মচারীরা। প্রতিদিনের মত বুধবার অর্থাৎ আন্দোলনের ১৭তম দিনে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে খোলা আকাশের নিচে বসে অমরণ অনশন পালন করেন তারা। বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী পানি পান করিয়ে শিক্ষকদের অনশন ভাঙান।

এদিকে, শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, সরকারের উচ্চপর্যায় থেকেই শিক্ষকদের বিষয়টি বিবেচনার পরামর্শ এসেছে। এ জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে দু’টি কমিটি গঠন করে কাজও শুরু করা হয়েছে। যদিও বিষয়টি কিছুটা সময়সাপেক্ষ। দাবি বাস্তবায়নে আগামী দেড় থেকে দুই মাস সময় লাগতে পারে। এক্ষেত্রে শিক্ষা মন্ত্রী বলেছেন, এমপিওভুক্তির কাজ যে মাসেই শেষ হোক, চলতি বছরের জুলাই মাস থেকেই বেতন প্রাপ্য হবেন তারা।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল